বৈরুতে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ ক্ষতিগ্রস্থ ও ২১ নৌসেনা আহতঃ নাশকতা নাকি দুর্ঘটনা?

150

শেখনিউজ রিপোর্টঃ লেবাননের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পত্যাগের ১ দিন পরে এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরির হত্যার বিচারের রায়ের ৩ দিন আগে রাজধানী বৈরুতের বন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণে এ পর্যন্ত ১১৩ জন নিহত এবং ৪০০০ এর বেশী আহত হয়েছেন। এতে ৪ জন বাংলাদেশী নিহত এবং বাংলাদেশ নৌবাহিনীর অন্তত ২১ সদস্যসহ ৯৯ জন আহত হয়েছেন।

আহত নিহতের এ সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকারী কর্মকর্তারা বন্দরের গুদামে কয়েক বছর ধরে পরে থাকা ভয়াবহ বিস্ফোরক পদার্থের বিষয়টিকে দায়ী করলেও কোন কোন মহল এ ঘটনার সাথে হিজবুল্লাহ অথবা ইসরাইলীদের সম্পৃক্ততাকে সন্দেহ করছেন।

জাতিসংঘ সমর্থিত একটি আদালত কর্তৃক সাবেক প্রধানমন্ত্রী রফিক হারিরির হত্যাকাণ্ডে ইরান সমর্থিত হিজবুল্লাহর চার সন্দেহভাজনকে বিচারের রায় দেয়ার ৩ দিন আগেই এ ঘটনা ঘটলো। উল্লেখ্য ২০০৫ সালে প্রধানমন্ত্রী হারিরিকে ২১ জন সঙ্গিসহ বোমা বিস্ফোরণে হত্যা করা হয়। বৈরুত বন্দর থেকে প্রায় ২ কিলোমিটার (প্রায় এক মাইল) দূরে বৈরুত ওয়াটারফ্রন্টের অন্য একটি অংশে হরিরিকে বড় ট্রাক বোমা দিয়ে হত্যা করা হয়েছিল।

লেবাননের রাষ্ট্রপতি মিশেল আউন বলেছেন, সার ও বোমাতে ব্যবহৃত ২,৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট জব্দ হওয়ার পরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই বন্দরে ছয় বছর ধরে সংরক্ষণ করা হয়েছিল।

অন্যদিকে লেবাননের ঝানু কূটনীতিক পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাসিফ হিট্টি সোমবার প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াবের সঙ্গে দেখা করে পদত্যাগপত্র দিয়ে বেরিয়ে যান। আরব লিগে লেবাননের অ্যাম্বাসেডর হিসেবে কাজ করা এ নেতা পদত্যাগপত্রে লেবাননকে ব্যর্থ রাষ্ট্র হওয়ার দ্বারপ্রান্তে বলে উল্লেখ করেন । এ পদত্যাগের ২ দিন পরেই এ বিস্ফরনের ঘটনা ঘটলো।

এদিকে বাংলাদেশে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আএসপিআর) পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, বৈরুতে মঙ্গলবারের বিশাল বিস্ফোরণে বন্দরের কাছে থাকা বাংলাদেশ নৌবাহিনীর একটি জাহাজ বানৌজা বিজয় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে নৌবাহিনীর অন্তত ২১জন সদস্য আহত হয়েছেন। আহতদের একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। জাহাজটি জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনের অংশ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিল।

বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাস বিস্ফোরণে শেষ পর্যন্ত ৪ জন বাংলাদেশি নিহত ও নৌসেনাসহ এ পর্যন্ত ৯৯ জন বাংলাদেশী আহত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে। হতাহতের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে আশংকা করছেন কর্মকর্তারা।

তবে সামনের দিনগুলোতে আরও নাশকতার সম্ভাবনার বিষয়টি বিশেষজ্ঞ মহল উড়িয়ে দিচ্ছেন না।

Facebook Comments

Hits: 47

SHARE