করোনা সংকটে রোবটের গুরুত্ব বাড়ছে

143

ডেস্ক রিপোর্টঃ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এবং রোবট ভবিষ্যতে মানুষের স্থান দখল করে নিতে পারে – এমন শঙ্কা সিনেমার পর্দায় মাঝেমাঝেই দেখা যায়৷ তবে করোনা মহামারিতে বিষয়টি ভিন্নভাবে উঠে এসেছে৷ মানুষের বিপদে পাশে দাঁড়াচ্ছে রোবট৷

করোনা মহামারি জার্মানির প্রায় সব শিল্পকারখানা জনশূণ্য করে ফেলেছে৷ আর এই কঠিন সময়ে প্যাট্রিক সোয়ার্জকফ্ ধন্যবাদ জানাতে চান হাজার হাজার মেশিনকে, যেগুলো অন্তত কিছু কারখানা সচল রেখেছে কিংবা করোনা সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞার পর দ্রুতই আবার উৎপাদন শুরুতে ভূমিকা রাখতে প্রস্তুত রয়েছে৷

জার্মান অ্যাসোসিয়েশন অব মেশিন অ্যান্ড প্লান্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স (ভিডিএমএ)-র রোবোটিকস অ্যান্ড অটোমেশন বিভাগের প্রধান মনে করেন, রোবটের একটি প্রাকৃতিক সুবিধা রয়েছে৷ আর তাহচ্ছে করোনা ভাইরাস মেশিনকে আক্রান্ত করতে পারে না৷

সোয়ার্জকফ্ অবশ্য এটাও দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করেন যে, আরো বহুবছর শিল্পকারখানায় ‘মানুষ কর্মী অপরিহার্য’ থাকবে৷

যদিও সাম্প্রতিক বছরগুলোতে অটোমেশন খাতে ব্যাপক উন্নতি হয়েছে, শিল্প রোবটগুলো এখনো কারখানায় মানুষের সহযোগীর ভূমিকা পালন করছে৷ অর্থাৎ, পুরোপুরি রোবটকেন্দ্রিক কারখানার বদলে কাজের ধরন এমনভাবে করা হচ্ছে যাতে রোবট এবং মানুষ সম্মিলিতভাবে কাজ করতে পারে৷

ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব রোবটিকস (আইএফআর)-এর সুসানে বিলার অবশ্য রোবটের ব্যবহার শীঘ্রই বাড়ার ব্যাপারে বেশ আশাবাদী৷ তিনি মনে করেন, করোনা সংক্রান্ত নিষেধাজ্ঞা তোলার পর বেশি করে রোবট ব্যবহার করে দোকানপাটে মানুষ কর্মীর ব্যবহার কমিয়ে ফেলা সম্ভব৷ এতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা যেমন সহজ হবে, তেমনি মানুষের সঙ্গে মানুষের স্পর্শও কমানো যাবে৷ তিনি এমনকি প্রতি দ্বিতীয় কর্মক্ষেত্রে আপাতত একটি রোবট বসানোর সম্ভাবনা দেখছেন৷

করোনা মহামারির মতো পরিস্থিতিতে রোবট যে কতটা সহায়ক হতে পারে, তার আরেকটি নজির সৃষ্টি করেছে জার্মানির দু’টি কোম্পানি৷ তারা সম্মিলিতভাবে রোবট ব্যবহার করে এক সপ্তাহের মধ্যে একটি পুরোপুরি অটোমেটিক উৎপাদন প্রক্রিয়া গড়তে সক্ষম হয়েছেন৷ আর এ প্রক্রিয়া ব্যবহার করে জার্মানিতে দ্রুত ফেস মাস্কতৈরি সম্ভব হচ্ছে৷

তবে, শিল্পকারখানায় রোবটের ব্যবহার বাড়লে মানুষের চাহিদা কমবে বলে একটি ধারণা দীর্ঘদিন ধরেই রয়েছে৷ আর এতে অনেক মানুষের কর্মহীন হয়ে পড়ার আশঙ্কা রয়েছে৷ করোনা সংকটে অনেক মানুষ গৃহবন্দি থাকায় বিষয়টি অনেকে স্বাভাবিকভাবে নিলেও করোনা পরবর্তী বিশ্বে রোবটের ব্যবহার বাড়ানোর বিরোধিতা আবারো গতি পেতে পারে৷

সৌজন্যেঃ DW Bangla

Facebook Comments

Hits: 51

SHARE