শপথের আগেই হাসিনা সরকারের প্রথম শিকার সাংবাদিক হেদায়েত

381

শেখনিউজ রিপোর্টঃ মোট ভোটারের চেয়েও ২২ হাজারের অধিক ভোট পড়ার সংবাদ করায় নিরীহ মফস্বল সাংবাদিক হেদায়েত হোসেন শপথ না নেয়া সরকারের প্রথম শিকারে পরিনত হলেন। খুলনা-১ (দাকোপ-বটিয়াঘাটা) আসনে মোট ভোটারের চেয়ে
 ২২,৪১৯টি ভোট বেশি পড়েছে বলে বাংলাট্রিবিউন, আজকের কাগজ ও মানবজমিন পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হলে সরকার বাংলা ট্রিবিউন এর খুলনা প্রতিনিধিকে হাতের কাছে পাওয়া শিকার হিসেবে তথাকথিত কুখ্যাত ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্টে মামলা দিয়ে হাতকড়া পরিয়ে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়।

পুলিশ হেফাজতে সাংবাদিক হেদায়েতকে নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে বলে পুলিশ সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে। এদিকে মামলার অপর আসামি মানবজমিনের খুলনা প্রতিনিধি রাশিদুল ইসলামকে খুঁজছে পুলিশ।

খবরটি ৩১শে ডিসেম্বরের মানবজমিন পত্রিকায় ছাপা হয়েছে। কাগজটির অনলাইন ভার্সন ও ঢাকা ট্রিবিউনের অনলাইনে প্রথমে ছাপা হলেও পরে সেটি আর দেখা যায়নি। তবে আজকের কাগজের অনলাইন ভার্সনে এখনো সংবাদটি রয়েছে; যেমন রয়েছে বিবিসি’র পোর্টালে রাতের বেলা ব্যালট ভরে সকালে ব্যালট বাক্স নিয়ে যাওয়ার ভিডিও। শেখ হাসিনার অনুগত আমলারা বিবিসিকে হাতের কাছে না পেলেও স্থানীয় মফস্বল সাংবাদিকদের উপর তাদের সকল হিংস্র ক্ষোভ দেখাতে একটুও ভুল করেনি।

উল্লেখ্য, ঐ তিন মিডিয়ার প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ অনুযায়ী জানা গেছে, সংসদ নির্বাচনে খুলনা-১ (দাকোপ-বটিয়াঘাটা) আসনের বেসরকারি ফলাফলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ২,৫৩,৬৬৯ ভোট এবং ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ২৮,১৭০ ভোট পেয়েছেন।

আসনটিতে মোট ভোটার সংখ্যা ২,৫৯,৪২০ হলেও এখানে নৌকা ও ধানের শীষের প্রার্থী মিলে মোট ভোটারের চেয়ে ২২,৪১৯টি ভোট বেশি পেয়েছেন।

রোববার রাত ১০টার দিকে খুলনার জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ হেলাল হোসেন এ ফলাফল ঘোষণা করেন। শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ব্যালটে নৌকা প্রতীকে সীল মেরে বাক্স ভর্তি করেছিল বলে ধানের শীষের প্রার্থী আমীর এজাজ খান রোববার দুপুরে প্রেসব্রিফিং করে অভিযোগ করেছিলেন এবং নির্বাচন বর্জন করেছিলেন।

বেসরকারি ফলাফলে জানা যায়, খুলনা-১ আসনে ১৪ দলীয় জোট সমর্থিত আওয়ামী লীগের সভাপতি নৌকা প্রতীক নিয়ে পঞ্চানন বিশ্বাস বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন দুই লাখ ৫৩ হাজার ৬৬৯ ভোট। আর তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ধানের শীষের প্রার্থী জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান পেয়েছেন ২৮ হাজার ১৭০ ভোট।

এছাড়া এ আসনে লাঙ্গল, হাতপাখা ও কাস্তে প্রতীকের প্রার্থীরাও কিছু ভোট পেয়েছেন। যা এখনও ঘোষণা করা হয়নি। সেগুলো যোগ করা হলে এর সংখ্যা আরও বাড়বে।

এ বিষয়ে জেলার রিটার্নিং কর্মকর্তা মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের কাছে প্রশ্ন করা হলে তিনি ব্রিবতকর অবস্থায় পড়েন। একপর্যায়ে তিনি বলেন, এটি সংশোধন করে আপনাদের পরে জানানো হবে। তবে, এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তিনি আর পরিবর্তিত ফলাফল ঘোষণা করেননি।

রিটার্নিং অফিসার এ বিষয়ে মামলা করতে অপারগতা জানালে, সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা দেবাশীষ চৌধুরী বাদীকে দিয়ে সাংবাদিক হেদায়েত হোসেন মোল্লা ও রাশিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয় সহজভাবে।” আর পুলিশ তা বাস্তবায়নে এতোটুকু সময় ক্ষেপণ না করেই সাংবাদিক হেদায়াতকে গ্রেপ্তার করে হাতকড়া লাগিয়ে হেদায়েত প্রদানের জন্য নিজেদের কব্জায় নিয়ে যায়।

নাম না প্রকাশ করার স্বার্থে একটি সুত্র জানিয়েছে, রিটার্নিং অফিসার নিজে জেনে বুঝে পরীক্ষা নিরীক্ষা করেই এই ফল প্রকাশ করেন। তাই মামলা হলে তার বিরুদ্ধে হওয়া উচিত; কিন্তু উদোর পিণ্ডি বুদোর ঘাড়ে দিতেই সহকারি রিটার্নিং অফিসারকে দিয়ে এই সাংবাদিক নির্যাতনের মত অপকর্মটি করানো হলো।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বাকিবিল্লাহ নামের একজন লিখেছেন, ”……… রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের উপর সংঘটিত গণহত্যার খবর প্রমান সহ প্রকাশ করেছিলেন মায়ানমারের দুই সাংবাদিক। সেই অপরাধে কিছুদিন আগে তাদের দশ বছর করে কারাদণ্ড দেয়া হয়। সেই খবরটা শুনে মাত্র সেদিনই ভেবেছিলাম— কি অসভ্য একটা দেশ মায়ানমার! মতপ্রকাশের স্বাধীনতা বা গণতান্ত্রিক মূল্যবোধে আমরা যে মায়ানমারের স্তরে নেমে যাইনি ভেবে কিছুটা স্বস্তিও হয়েছিল। সেই ব্যবধানটুকু আজ পুরোপুরি ঘুচে গেল।

Facebook Comments
SHARE