বিএনপিকে কি সরকারে যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে?

231

শেখ মহিউদ্দিন আহমেদঃ পুরো নির্বাচন ব্যবস্থাকে দখল করে ইচ্ছেমত জয়লাভ করার পর এইবার সংসদে বিরোধী দল না রাখার পরিকল্পনা হচ্ছে বলে জানা গেছে। সে জন্য বিএনপি শপথ গ্রহন করলে তাদের শেখ হাসিনার সরকারে যোগ দেয়ার আমন্ত্রণ জানানো হতে পারে। এ জন্য শেখ হাসিনার আগামী সরকার বিএনপির নেতৃত্ব থেকে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে বাদ দেয়ার ব্যবস্থা নিলে নির্বাচিত সংসদ সদস্য মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগির হবেন বিএনপি চেয়ারম্যান।

সুত্র আরও জানিয়েছে, দেশব্যাপী বিএনপি নেতা কর্মীদের রক্ষার খাতিরে এমন প্রস্তাব এলে তা গ্রহন করা ছাড়া মির্জা ফখরুলের অন্য কোন বিকল্প থাকবে না। অতিরিক্ত হিসেবে তখন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন বা মুক্তির ব্যবস্থা করার দাবী করলে শেখ হাসিনা তাও মেনে নিতে পারেন অন্য কোন শর্ত দিয়ে।

সংসদ গঠনের পরে সরকার গঠনের সময়ে এমনিতেই আওয়ামী লীগের সাথে জাতীয় পার্টি, জাসদ, ওয়ার্কার্স পার্টি, তরিকত ফেডারেশন ও বিকল্প ধারা যোগ দেবে; তখন বাকী থাকবে বিএনপি ও গণফোরামের এমপিগন এবং আওয়ামী লীগের স্বতন্ত্র এমপিগন। এদের সংখ্যায় কেউই বিরোধী দলের মর্যাদা পাবেন না। তাই ইতিহাস রচনার জন্য শেখ হাসিনা এমন একটি সরকারের প্রস্তাব দিতে পারেন; যা বিদেশীদের কাছেও তার ইজ্জত রক্ষায় কাজে লাগবে।

তবে এখনো পর্যন্ত অফিসিয়ালি এমন পরিকল্পনার কোন ঘোষণা বা সত্যতা কেউ স্বীকার করেন নাই। তবে বাংলাদেশে নিজেদের স্বার্থ সংরক্ষনের জন্য ভারতীয়রা এমন একটি সরকারকে স্বাগত জানাবে বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যেই বিএনপি তাদের পররাষ্ট্র নীতি ও জাতীয়তাবাদী আদর্শের বাইরে গিয়ে ভারতের বশ্যতা স্বীকার করে নিয়েছে। নির্বাচন পূর্বে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস পত্রিকায় ডঃ কামাল হোসেন এবং বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের সাক্ষাতকারে কোন রাখঢাক না রেখেই তা প্রকাশ করা হয়েছে।

তবে এমনটি হলে দেশপ্রেমিক ও জাতীয়তাবাদী শক্তি এমন ঘটনাকে কোন দৃষ্টিতে দেখবেন তা কেবলমাত্র সময়ই বলে দেবে বলে অভিজ্ঞ মহলের অভিমত।

Facebook Comments
SHARE