আন্দোলনেই ঐক্যজোটের ঐক্য প্রমান হবেঃ প্রমান হবে সশস্ত্র বাহিনীর চরিত্র

215

শেখনিউজ রিপোর্টঃ সংলাপে কোন সুরাহা না হওয়ায় জাতীয় ঐক্যজোট আন্দলনের পথকেই বেছে নিতে যাচ্ছে; যদিও তারা নির্বাচনে অংশ নেবে কিনা এখনো সেই সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে শেখ হাসিনা যে চাপের মধ্যে পড়েছেন সেটি সংবাদ সম্মেলন বাতিল করায় প্রমানিত হয়েছে। শেখনিউজ আগেও বলেছে শেখ হাসিনা একরোখা মনোভাব নিয়ে আগাছা দিয়ে ভরা সংবিধানের দোহাই দিয়ে নির্বাচন করার চেষ্টা করলে তা তাকে চরম পরিনতি নিশ্চিত করবে। তার এরুপ আচরন গণতন্ত্রের পরিচায়ক হবে না, হবে উলঙ্গ ক্ষমতা লিপ্সার জ্বলন্ত উদাহরন। 

এদিকে সেনাবাহিনীর প্রধানের সাথে ডিএমপি কমিশনারের বৈঠক এবং জিওসিদের সাথে রেঞ্জ ডিআইজি ও কমিশনারদের বৈঠক নিয়ে চলছে দেশব্যাপী গুঞ্জন। জাতি প্রত্যাশা করছে যতই বিতর্ক থাক সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজকে নিয়ে, চাকুরী জীবনের শেষে এসে তিনি আর জাতির বিরুদ্ধে না দাড়িয়ে জাতিকে উদ্ধার করে জাতির প্রতি তার ঋণ শোধ করে ইতিহাস হয়ে থাকবেন।

সামনের দিনগুলো বড়ই জটিল, ৭ দফার সমাধান ছাড়া জাতীয় ঐক্যজোট বা জোটের কেউ নির্বাচনে গেলে সরাসরি তারা জাতীয় বেইমান হবেন; তাতে যতই ভারতীয় এজেন্ডা থাকুক না কেন? জোটে যে সকল চিহ্নিত ভারতীয় দালাল রয়েছেন জীবনের এই শেষ সময়ে যদি তারা জাতির প্রতি তাদের দায় শোধ করতে নিজেদের উৎসর্গ করেন তবে প্রত্যকেই জাতীয় বীর হয়ে থাকবেন।

সাবেক রাষ্ট্রপতি জেনারেল এরশাদ এবং ডাঃ বদরুদ্দজা চৌধুরী অবশেষে পুরো জাতির কাছে নিজেদের উলঙ্গ করে দিলেন; হয় তারা নিজেদের চামড়া বাঁচাতে জাতিকে বিক্রি করেছেন না হয় সরাসরি তারা দালালে পরিনত হয়েছেন। বাম গণতান্ত্রিক জোট তাদের কথা রাখবেন বলেই জাতি বিশ্বাস করে; আর আলেম শ্রেণীর যারা শেখ হাসিনা সরকারের স্বৈরতন্ত্রের পক্ষ নিয়েছে তারা জাতির কাছে কত নিগৃহীত হবে তা অদুর ভবিষ্যতেই দেখা যাবে। একসময় এই সকল দালাল মোল্লা আলেম ওলামাদের পেছনে জাতি নামাজ পরতেও দ্বিধা করবে।

তবে সবকিছু নির্ভর করছে এই শেষ খেলায় ঐক্যজোটের শেষ ভুমিকার উপর। জাতির মুক্তি নাকি সংসদের আসন, কোনটি তাদের কাছে প্রিয় হবে সেটির উপর নির্ভর করবে সবকিছু। ভয়ংকর এক রাজনৈতিক পরিবেশে প্রবেশ করতে যাচ্ছে জাতি; আর তার ডেটনেটর হচ্ছে শেখ হাসিনার হাতে; সেটি দিয়ে তিনি জাতিকে ধ্বংস করবেন নাকি নিজে তার গোলাম খুনি বাহিনী, আমলা, মাফিয়া ও সন্ত্রাসী ক্যাডারদের নিয়ে ধ্বংস হবেন সেটি এখন সময়ের ব্যাপার।

শেখ মহিউদ্দিন আহমেদ দেশের সকল প্রকাশ্য ও গোপন রাজনৈতিক দলগুলোকে আহ্বান জানিয়েছেন সকল প্রভেদ ভুলে জাতির এই সংকটে জাতির পক্ষে দাঁড়াতে। তিনি বলেছেন এখন তার কোন দল বা ব্যাক্তি নেতার বিষয় নেই বিষয় একটাই জাতীয় অস্তিত্ব। তাই নিজের সন্তানদের জন্য একটি বাংলাদেশ চাইলে সবাইকে যার যা কিছু আছে তা নিয়ে সামনের সংকট মোকাবেলার আহ্বান জানিয়েছেন।

Facebook Comments
SHARE