মাসুদা ভাট্টিকে এ্যাবিউজ করায় মইনুলের গ্রেপ্তার জরুরী ছিলঃ মন্ত্রী কাদের

102

শেখনিউজ রিপোর্টঃ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা মইনুল হোসেনের গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক ও মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মাসুদা ভাট্টিকে যেভাবে এ্যাবিউজ করেছে, তাতে মইনুল হোসেনের গ্রেপ্তার হওয়া ‘জরুরি ছিল’।  তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে মামলার কারণে, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে তার সংশ্লিষ্টতা এখানে কোনো বিষয় নয়। তবে কেন জরুরী ছিল এবং মাসুদা ভাট্টি কিভাবে এাাবিউজ করা হয়েছে সেটি তিনি ব্যাখ্যা করেন নাই। 

বিশ্লেষকদের মতে, ওবায়দুল কাদেরের এই এ্যাবিউজ করা বিষয়টি যেমন যৌনতার এ্যাবিউজ নয় তেমনি চরিত্রহীন শব্দটিও যৌন চরিত্রের বিচ্যুতি নয়; এটি শেখ হাসিনা বা তার দলবল ও বশংবদ সাংবাদিকদের বোঝা উচিত ছিল। কিন্তু যেহেতু একটি ষড়যন্ত্রের প্লটের মাধ্যমে এ শব্দটিকে প্রধানমন্ত্রীর ইচ্ছায় এগিয়ে নেয়া হয়েছে; তাই অন্যকোন শব্দ ের প্রতিস্থাপনের কোন সুযোগ নেই বলে অভিজ্ঞ মহল মনে করেন।

সোমবার বিকালে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনেও মইনুলের কটূক্তির আলোচনা হয়। তখন শেখ হাসিনা সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, “আপনারা প্রতিবাদ করেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যা করার করবে। আপনারা মামলা করেন, আমরা যা করার করব।” এরপর মইনুলকে গ্রেপ্তার ও গ্রেপ্তারের পক্ষে যুক্তি দিয়ে কাদের বলেন, যে ঘটনা ঘটেছে তার পুনরাবৃত্তি রোধেই এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।  কোনভাবে বা কি পুনরাবৃত্তি হতে পারে সেটিও তিনি খোলাসা করেন নাই।

ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে আওয়ামী লীগের কোনো উদ্বেগ বা আশঙ্কা রয়েছে কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে ক্ষমতাসীন দলটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, “ঐক্যফ্রন্ট নিয়ে কোনো উদ্বেগ বা শঙ্কা নেই। প্রধানমন্ত্রী তো স্বাগত জানিয়েছেন, মইনুল হোসেনকে ব্যক্তিগত অপরাধের কারণে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। হঠাৎ করে এসে তার রাজনীতির খায়েস হয়েছে, যাকে তাকে গালি দেবেন…। ”

এতেই বোঝা যায় কোন ক্ষোভে সরকার ব্যারিস্টার মইনুলকে গ্রেপ্তার করেছে।

 

Facebook Comments
SHARE